ই-পেপার বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ ৩৩ বিলিয়ন ডলার
বৈশ্বয়িক অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থেকে ধারাবাহিকভাবে ডলার বিক্রি করছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
৪৫ তম বিসিএসের আবেদন ১০ ডিসেম্বর শুরু 
হাসপাতালগুলোকে সাধারণ বর্জ্য, চিকিৎসা বর্জ্য আলাদা হস্তান্তর করতে হবে: তাপস

একাদশে ভর্তি / আবেদন শুরু ৮ ডিসেম্বর, ভর্তি মেধার ভিত্তিতে

জিএম কাদের জাপার চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না: আপিল বিভাগ

পাকিস্তানে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত ৪, আহত ২৭

প্রশান্তি ও চোখের স্নিগ্ধতার কারণ যে নামাজ 

শিশু আয়াত খুন / আসামিকে নিয়ে খণ্ডিত পা উদ্ধার

মুক্তিযুদ্ধ ছাত্র মঞ্চের ঢাবি শাখার সভাপতি হলেন নাঈম

কোনো ব্যাংক দেউলিয়া হবে না এসব গুজব: পরিকল্পনামন্ত্রী

৪ লাখ শিশু অপরিণত বয়সে জন্ম হয়: বিএসএমএমইউ উপাচার্য

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

মুক্তিযুদ্ধ ছাত্র মঞ্চের ঢাবি শাখার সভাপতি হলেন নাঈম

প্রশান্তি ও চোখের স্নিগ্ধতার কারণ যে নামাজ 

কোনো ব্যাংক দেউলিয়া হবে না এসব গুজব: পরিকল্পনামন্ত্রী

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ ৩৩ বিলিয়ন ডলার

৪ লাখ শিশু অপরিণত বয়সে জন্ম হয়: বিএসএমএমইউ উপাচার্য

হাসপাতালগুলোকে সাধারণ বর্জ্য, চিকিৎসা বর্জ্য আলাদা হস্তান্তর করতে হবে: তাপস

তিতুমীর কলেজের নতুন অধ্যক্ষ ফেরদৌস আরা বেগম

৪৫ তম বিসিএসের আবেদন ১০ ডিসেম্বর শুরু 

ডিআরইউর সভাপতি নোমানী, সাধারণ সম্পাদক সোহেল

আফগানিস্তানে স্কুলে বোমা হামলায় নিহত ১৫ 

চৌধুরীপাড়া মাদরাসার ৩০ সালা সম্মেলন বৃহস্পতিবার শুরু

বিজয়ের মাসে চালু হচ্ছে দেশের প্রথম সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল

ডেঙ্গুতে আরও ৪ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৪২৬

জিএম কাদের জাপার চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না: আপিল বিভাগ

মন্ত্রীত্ব থাকার পরও গোপনে ৫ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে মরিসন

ঢাবি’র ১৫ শিক্ষার্থীর এএফ মুজিবুর রহমান স্বর্ণপদক লাভ 

সরকার কাউকে বিশৃঙ্খলা করার অনুমতি দিতে পারে না: তথ্যমন্ত্রী 

আসামিকে নিয়ে খণ্ডিত পা উদ্ধার

রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়লো একমাস

চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকতে সেনাপ্রধানের আহ্বান

হাসপাতালগুলোকে সাধারণ বর্জ্য, চিকিৎসা বর্জ্য আলাদা হস্তান্তর করতে হবে: তাপস
হাসপাতাল, ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক সেন্টারসহ চিকিৎসা সংক্রান্ত সকল প্রতিষ্ঠানে সৃষ্ট সাধারণ বর্জ্য হতে চিকিৎসা বর্জ্যকে আলাদা করে সিটি করপোরেশন নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠানের কাছে হস্তান্তর করতে হবে।

ডিআরইউর সভাপতি নোমানী, সাধারণ সম্পাদক সোহেল

চৌধুরীপাড়া মাদরাসার ৩০ সালা সম্মেলন বৃহস্পতিবার শুরু

আসামিকে নিয়ে খণ্ডিত পা উদ্ধার

রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়লো একমাস

চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকতে সেনাপ্রধানের আহ্বান

বাংলাদেশকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয় ভারত : ভার্মা

সন্ত্রাসীদের গুলিতে জেএসএস সমর্থক নিহত, আহত ১
প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় এমপিওভুক্তির দাবিতে প্রেসক্লাবের সামনে শিক্ষকদের অবস্থান

উখিয়ায় পিআইওকে মারধর করে ডাম্পার ছিনতাই, পাহাড় খেকোদের বিরুদ্ধে মামলা

উখিয়ায় অবৈধভাবে পাহাড় কাটায় বাধা দেওয়ায় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও)কে মারধর করে ডাম্পার ছিনতাইয়ের ঘটনায় ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। শনিবার (২৬ নভেম্বর) রাতে পিআইও মো. আল মামুন বাদি হয়ে থানায় মামলাটি করেন। আসামিরা হলেন, জালিয়াপালং উত্তর পুকুরিয়া এলাকার শহর আলীর ছেলে ডাম্পার চালক মো. হেলাল উদ্দিন (২২), মো. জামাল উদ্দিন (৩২), কাদির হোসেনের ছেলে মো. সাব্বির (৪০) এবং আবদুল গনির ছেলে বেলাল উদ্দিন প্রকাশ প্রফেসর বেলাল (৪৮)। অজ্ঞাতনামা আসামি রয়েছে আরো ২০ জন। সবাই পাহাড় খেকোচক্রের সদস্য। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মো. আলী। তিনি জানান, পিআইও মামুনের ওপর হামলার ঘটনায় ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। ছিনিয়ে নেওয়া ডাম্পার উদ্ধার ও আসামিদের ধরতে অভিযান চলছে। উল্লেখ্য, শনিবার সকালে রাজাপালং ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর পুকুরিয়া উত্তর কামারিয়ার বিল নতুন মসজিদ এলাকায় সরকারি প্রকল্পের কাজ পরিদর্শনে গেলে ‘পাহাড়খেকো’ সিন্ডিকেটের হামলা ও মারধরের শিকার হন পিআইও মো. আল মামুন। ছিনিয়ে নেওয়া হয় মাটি ভর্তি ডাম্পার।  উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইমরান হোসাইন সজিব জানান, পিআইও মো. আল মামুনের ওপর হামলাকারী ‘পাহাড়খেকো’ সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বন বিভাগ ও পরিবেশ অধিদপ্তরকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অপরাধ করে কেউ পার পাবে না। মামলার বাদি পিআইও মো. আল মামুন জানান, প্রকল্পের কাজ পরিদর্শনে গেলে মাটি ভর্তি একটি ডাম্পার দেখে সেটি থামান। পাহাড়ের মাটি কেটে নিয়ে যাওয়ার কারণ জিজ্ঞেস করলে ক্ষিপ্ত ও তর্কে লিপ্ত হয় পাহাড় খেকোরা। ইতোমধ্যে আরো অনেক লোক জড়ো হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মারধর করে আটক ডাম্পার গাড়িটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ইউএনও। প্রফেসর বেলাল পাহাড়খেকোচক্রের মূল সহায়তাকারী বলে জানান পিআইও মো. আল মামুন। এবি/এপি

আমার এলাকার সংবাদ

অনুসন্ধান
কোনো ব্যাংক দেউলিয়া হবে না এসব গুজব: পরিকল্পনামন্ত্রী
রাজধানীর কৃষিবিদ ইন্সটিটিউটে এক অনুষ্ঠান শেষে দেশের কোনো ব্যাংকই দেউলিয়া হবে না বলে মন্তব্য করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি বলেন, একটা শ্রেণি অসৎ উদ্দেশ্যে এসব গুজব ছড়াচ্ছে।
সরকার কাউকে বিশৃঙ্খলা করার অনুমতি দিতে পারে না: তথ্যমন্ত্রী 
তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘সরকার তো কাউকে গন্ডগোল সৃষ্টির জন্য, সারাদেশ থেকে অগ্নিসন্ত্রাসীদের জড়ো করে ঢাকা শহরে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার জন্য অনুমতি দিতে পারে না। বিএনপির শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করার ক্ষেত্রে সরকার সহযোগিতা করার উদ্দেশ্যেই তাদেরকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।’
বিএনপি সমাবেশ ঘিরে সহিংসতা করলে সমুচিত জবাব: ওবায়দুল কাদের
আগামী ১০ ডিসেম্বর গণ-সমাবেশকে ঘিরে আন্দোলনের নামে বিএনপি যদি সহিংসতা করে তাহলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সমুচিত জবাব দেবে আওয়ামী লীগ।

সারিকার চুলের মুঠি ধরে এক কাপড়ে তার বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন স্বামী।

স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেছেন, এডিস মশা বাংলাদেশে আগে ছিলো না। তাঁর অনুমান এটি এসেছে বিমানে চড়ে। এই অনুমানের সঙ্গে আপনি কি একমত?
আফগানিস্তানে স্কুলে বোমা হামলায় নিহত ১৫ 

মন্ত্রীত্ব থাকার পরও গোপনে ৫ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে মরিসন

অস্ট্রেলিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন করোনা মহামারির সময় গোপনে পাঁচ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিয়েছিলেন। বিষয়টি এতোটাই গোপন ছিল যে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রীরাও তা জানতেন না। ২০২০ সাল থেকে ২০২১ সালের মাঝামাঝি পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার স্বাস্থ্য, অর্থ, সম্পদ, স্বরাষ্ট্র ও রাজস্ব মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন স্কট মরিসন। আগস্ট মাসে ‘দ্য অস্ট্রেলিয়ান’ পত্রিকায় নতুন প্রকাশিত একটি বইয়ের সারাংশ প্রকাশিত হলে বিষয়টি সবার নজরে আসে। বুধবার অস্ট্রেলিয়ার সংসদে মরিসনের সমালোচনা করা হয়। এ বিষয়ে আনীত প্রস্তাব ৮৬-৫০ ভোটে পাস হয়। মরিসনের কর্মকাণ্ড ‘অস্ট্রেলিয়ার গণতন্ত্রের প্রতি মানুষের আস্থা নষ্ট করে দিয়েছে’ বলে মন্তব্য করা হয়। মরিসন হলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রথম প্রধানমন্ত্রী, যার বিরুদ্ধে সংসদে সমালোচনা প্রস্তাব পাস হলো। করোনার সময় মরিসন সীমান্তে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিলেন। অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান প্রধানমন্ত্রী অ্যান্থনি অ্যালবানিজি মরিসনকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। গত মে মাসে নির্বাচনে মরিসনের জোটকে হারায় অ্যালবানিজির দল। সংসদে ভোটের আগে মরিসন বলেন, ‘আজ যারা আমার বিরুদ্ধে ভোট দেওয়ার কথা ভাবছেন, তাদের আমি একটি বিষয় বিবেচনায় নেওয়ার অনুরোধ করছি- আপনারা কি কখনও এমন কোনো পরিস্থিতি নিয়ে কাজ করেছেন যার ভবিষ্যৎ সম্পূর্ণ অজানা ছিল।’ তিনি স্বীকার করেন কাউকে না জানানোর জন্য অনিচ্ছাকৃত অপরাধ ঘটেছে এবং যারা এতে আহত হয়েছেন তাদের কাছে ক্ষমা চান। মরিসন বলেন, ক্ষমতা নেওয়ার পর তিনি শুধু একটি কাজ করেছেন, সেটি হচ্ছে সম্পদমন্ত্রীর দেওয়া একটি গ্যাসকূপ খনন প্রকল্পের অনুমোদন তিনি বাতিল করে দেন। এদিকে হাইকোর্টের সাবেক বিচারক ভার্জিনিয়া বেল বিষয়টি তদন্ত করার পর বলেন, মরিসনের কাজ আইনগতভাবে বৈধ ছিল, যদিও বিষয়টি ‘সরকারের প্রতি আস্থা কমিয়েছে’৷ ভবিষ্যতে এমন পরিস্থিতি এড়াতে তিনি আইনের ফাঁক বন্ধ করার প্রস্তাব দেন৷ অর্থাৎ প্রতিটি মন্ত্রী পদে নিয়োগের বিষয়টি প্রকাশ্যে জানানো বাধ্যতামূলক করার পরামর্শ দেন বেল। এবি/এপি

চীনের সাবেক প্রেসিডেন্ট জেমিন মারা গেছেন

চীনের সাবেক প্রেসিডেন্ট জিয়াং জেমিন ৯৬ বছর বয়সে মারা গেছেন। বুধবার (৩০ নভেম্বর) চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সিনহুয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। চীনের সরকারি সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া বলেছে, বুধবার স্থানীয় সময় বেলা ১২টা ১৩ মিনিটে মারা গেছেন জিয়াং। দীর্ঘদিন ধরে প্রাণঘাতী লিউকেমিয়াসহ একাধিক জটিল রোগে ভোগার পর সাংহাই শহরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন তিনি। দেশটির ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি, সংসদ, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এবং সামরিক বাহিনী সাবেক এই নেতার মৃত্যুর ঘোষণা দিয়ে চীনা জনগণের কাছে একটি চিঠি প্রকাশ করেছে। চিঠিতে গভীর শোক প্রকাশ করে বলা হয়েছে, ‘কমরেড জিয়াং জেমিনের মৃত্যু আমাদের পার্টি, সামরিক বাহিনী এবং আমাদের সব  জাতিগোষ্ঠীর জনগণের জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি।’ এতে জিয়াং জেমিনকে উচ্চ মর্যাদাসম্পন্ন একজন অসামান্য নেতা, মহান মার্কসবাদী, রাষ্ট্রনায়ক, সমর কৌশলবিদ, কূটনীতিক এবং দীর্ঘ পরীক্ষিত কমিউনিস্ট যোদ্ধা হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে। চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জিয়াং জেমিনের মৃত্যুতে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির প্রধান অফিস, সরকারি বিভিন্ন ভবন ও বিশ্বজুড়ে চীনা দূতাবাস ও কনস্যুলেটে চীনের পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে। রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম সিসিটিভি বলছে, জিয়াংয়ের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া ব্যবস্থাপনা কমিটির এই আদেশ বুধবার থেকে তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার তারিখ পর্যন্ত প্রযোজ্য হবে। তবে দেশটির সাবেক এই নেতার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার তারিখ এখনও ঘোষণা দেওয়া হয়নি। ১৯৮৯ সালে গণতন্ত্রপন্থী বিক্ষোভকারীদের ওপর রক্তাক্ত তিয়ানআনমেন অভিযানের কিছুদিন পর জিয়াংকে চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির প্রধানের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ওই ঘটনার পর চীনকে পরবর্তী কূটনৈতিক বিচ্ছিন্নতা থেকে মুক্ত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সম্পর্ক মেরামত এবং নজিরবিহীন অর্থনৈতিক উত্থানের তত্ত্বাবধান করেন তিনি। ইতিহাস সৃষ্টিকারী পরিবর্তনের মাধ্যমে চীনকে দেখেছেন জিয়াং; যার মধ্যে রয়েছে বাজার-ভিত্তিক সংস্কার ব্যবস্থার পুনরুজ্জীবন, ১৯৯৭ সালে ব্রিটিশ শাসন থেকে হংকংয়ের প্রত্যাবর্তন এবং ২০০১ সালে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় (ডব্লিউটিও) বেইজিংয়ের প্রবেশ। সুত্র : আলজাজিরা এবি /এপি
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ ৩৩ বিলিয়ন ডলার

ইসলামী ব্যাংকে ‘ভয়ংকর নভেম্বর’: রিট করার পরামর্শ হাইকোর্টের

ভুয়া ঠিকানা ও কাগুজে কোম্পানি খুলে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড (আইবিবিএল) থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা তুলে নেওয়া ও এস আলম গ্রুপের ৩০ হাজার কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার ঘটনায় রিট করার পরামর্শ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদন নজরে আনলে আজ বুধবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ পরামর্শ দেন। আদালতে বিষয়টি নজরে আনেন আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির। তিনি এ সময় আদালতের কাছে আদেশ প্রার্থনা করেন। তখন হাইকোর্ট বলেন, প্রতিবেদনগুলো সংযুক্ত করে রিট আবেদন আকারে কোর্টে আসুন। এসময় আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক ও দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান উপস্থিত ছিলেন। পরে আইনজীবী শিশির মনির বলেন, আমরা আজই আদালতে রিট করবো। গত ২৪ নভেম্বর দৈনিক প্রথম আলোতে ইসলামী ব্যাংকে ‘ভয়ংকর নভেম্বর’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনের প্রথমাংশে বলা হয়, ব্যাংকের নথিপত্রে নাবিল গ্রেইন ক্রপস লিমিটেডের অফিসের ঠিকানা বনানীর বি ব্লকের ২৩ নম্বর সড়কের ৯ নম্বর বাড়ি। সেখানে গিয়ে দেখা গেল, এটি একটি পূর্ণাঙ্গ আবাসিক ভবন। ঋণ পাওয়া মার্টস বিজনেস লিমিটেডের ঠিকানা বনানীর ডি ব্লকের ১৭ নম্বর সড়কের ১৩ নম্বর বাড়ি। সেখানে গিয়ে মিলল রাজশাহীর নাবিল গ্রুপের অফিস। তবে মার্টস বিজনেস লাইন নামে তাদের কোনো প্রতিষ্ঠান নেই। এভাবেই ভুয়া ঠিকানা ও কাগুজে দুই কোম্পানি খুলে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড (আইবিবিএল) থেকে দুই হাজার কোটি টাকা তুলে নিয়েছে একটি অসাধু চক্র। সব মিলিয়ে বিভিন্ন উপায়ে ইসলামী ব্যাংক থেকে প্রায় সাত হাজার কোটি টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে। আটটি প্রতিষ্ঠানের নামে চলতি বছরেই এ অর্থ নেওয়া হয়। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থ তুলে নেওয়া হয় চলতি মাসের ১ থেকে ১৭ নভেম্বর সময়ে। যার পরিমাণ ২ হাজার ৪৬০ কোটি টাকা। এ জন্যই ব্যাংকটির কর্মকর্তারা চলতি মাসকে ‘ভয়ংকর নভেম্বর’ বলে অভিহিত করছেন। একইভাবে বেসরকারি খাতের সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক (এসআইবিএল) ও ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক থেকেও ২ হাজার ৩২০ কোটি টাকা তুলে নিয়েছে কোম্পানিগুলো। ফলে এ তিন ব্যাংকের কাছে প্রতিষ্ঠানগুলোর সুদসহ দেনা বেড়ে হয়েছে সাড়ে ৯ হাজার কোটি টাকা। এমন সময়ে এসব অর্থ তুলে নেওয়া হয়, যখন ব্যাংক খাতে ডলার-সংকটের পর টাকার সংকট বড় আলোচনার বিষয়। এদিকে গতকাল মঙ্গলবার নিউ এইজ পত্রিকায় এস আলম গ্রুপ একাই ইসলামী ব্যাংক থেকে ৩০ হাজার কোটি টাকা ঋণ নিয়েছে- এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এই প্রতিবেদনটিও আদালতের নজরে আনা হয়। এবি/ জিয়া  
আর্জেন্টিনা -পোল্যান্ড ম্যাচসহ টিভিতে আজ যেসব খেলা দেখা যাবে
আজ বুধবার কয়েকটি খেলা প্রচারিত হবে টেলিভিশনের। চলুন এক নজরে দেখে নেয়া যাক কোন টিভি চ্যানেলে কোন খেলা প্রচারিত হবে। ২০২২
পর্দায় কতবার ঠোঁটে ঠোঁট রেখেছেন শাহরুখ?
এবার হিন্দি সিনেমায় জয়া
কীভাবে যৌন হয়রানি করা হয়েছে, আদালতকে জানালেন পরীমণি
ঢাকা বোট ক্লাবের সাবেক সভাপতি নাসির ইউ মাহমুদ, তুহিন সিদ্দিকী অমি ও তাদের সহযোগী শাহ শহিদুল আলমের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টার মামলায় ঢাকার একটি

ইতিহাস গড়ে শীর্ষস্থানে জাংকুকের ‘ড্রিমার্স’

আয়োজকদের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রাহার

সালমান খানের জীবনী নিয়ে তথ্যচিত্র উপস্থাপনা করবেন তার ‌'প্রেমিকা'

ব্রাজিলের জয়ে যা বললেন মিম

দিল্লির হাসপাতালে ফারিয়া

কাতারে প্রথমবার ঐতিহ্যবাহী হিজাব পড়ে উচ্ছ্বসিত অনেকেই।

অলমগীর ব্রাজিল সাপোর্টার হলেও রুনা লায়লা খেলাই দেখেন না

নিপুন জায়েদ খানের সাথে সিনেমা করবে

এবার হিন্দি সিনেমায় জয়া আহসান।

টি-২০ বিশ্বকাপ

এভাবে চাননি পরিচিত হতে, দুঃখ স্কারলেটের!
রবীন্দ্র সরোবরে ‘অপারেশন সুন্দরবন’ গান,আড্ডা,মাস্তি,
হাসনাকে দেখে তারা তালি দেবেন - মিম
ঝিলংজা বীজ উৎপাদন খামার (বিএডিসি) এর উদ্যোগ / অপরাধীদের আস্তানায় ফলজ বাগান
মুক্তিযুদ্ধ ছাত্র মঞ্চের ঢাবি শাখার সভাপতি হলেন নাঈম
ঢাবির‌ দুই বিভাগের নবীনবরণ ও বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত 
৪ লাখ শিশু অপরিণত বয়সে জন্ম হয়: বিএসএমএমইউ উপাচার্য