ই-পেপার বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

মানুষ আসলেই কষ্টে আছে

মানিক মুনতাসির :
০২ নভেম্বর ২০২২, ১৩:৩৮

এর মধ্যেও আমরা চরম এক বিতর্কে অবতীর্ণ-ভোট হবে কিসে? সাধারণ ব্যালটে নাকি ইভিএমে। এরইমধ্যে ইভিএম কিনতে প্রায় নয় হাজার কোটি টাকার একটি প্রকল্পও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অথচ সবদিকে মাইক বাজিয়ে কৃচ্ছতাসাধনের কথাও বলা হচ্ছে।

Indian Pakur

মাস ছয়েক আগে আমি ইংল্যান্ড সফরে গিয়েছিলাম। তখন সম্ভবত জুনের মাঝামাঝি কোন এক দিন। রোজার মাস। ব্কিালে ১০ নং ডাউনিং স্ট্রিটে প্রধানমন্ত্রীর বাসবভনের সামনে অভিবাসীদের অধিকার নিয়ে চরম এক বিক্ষোভ প্রদর্শিত হচ্ছিল। তবে আন্দোলনকারীর সংখ্যা ছিল খুবই কম। পুলিশ সুশৃঙ্খলভাবে এই মাইনরিটি গ্রুপটাকে পাহারা দিয়ে রেখেছিল পুরো সময়। সমাবেশের শ্লোগানে তারা সে সময়ের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে গালি গালাজও করছিল। কেউ কেউ কুশপুত্তলিকাতেও লাথি মারছিল। কিন্তু পুলিশকে দেখলাম অসীম ধৈর্য্য নিয়ে আন্দোলনকারীদের সহায়তা করতে।

ইতিহাস অনুযায়ী গণতন্ত্রের সুতিকাগার বলা হয় গ্রীসকে। আর আধুনিক গণতন্ত্রের জনক রাষ্ট্র বলা হয় বৃটেনকে (ইংল্যান্ড)। লীজ ট্রাস নারী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার মাত্র ৪৯ বা ৫০ দিনের মাথায় তিনি দায়িত্ব ছেড়ে দেন। ৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ থেকে ২৫ অক্টোবর ২০২২। লীজ ট্রাস ব্যর্থতার গ্লানী নিয়ে চলে গেলেও তাঁর উত্তরসূরী ঋসি সুনাম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রথমবার দেওয়া বক্তব্যে লীজের ব্যর্থতার ব্যাপারে কোন কথা বলেননি। বরং বলেছেন তিনি সঠিক পথেই ছিলেন। আমাদের সবার হয়তো ভুল ছিল। ইংল্যান্ড বর্তমানে ইতিহাসের ভয়াবহ আর্থিক সংকটকাল পার করছে বলেও প্রথম ভাষণে বলেছেন ঋসি। ক্ষমতার এই পালাবদলে কোন সংঘাত, মারামারি, মিছিল, বিক্ষোভ কিংবা হাতাহাতি বা চুলোচুলির দরকার হয়নি। মাত্র কয়েকদিন আগে দেশটি তাদের রানীকেও হারিয়েছে। এরপরও দেশের কোথাও কোন সংঘাত হয়নি। এটাই আসলে গণতন্ত্রের সৌন্দর্য। এটাই জনগনের আস্থা-অনাস্থার ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া। নিজের ব্যর্থতা বুঝতে পেরে নিজেকে সরিয়ে নেওয়াও এক ধরনের বুদ্ধিমত্তা। যা সবাই পারে না। শুধু এই লীজ ট্রাসরাই দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন। সারাবিশ্বে যুদ্ধবাজ দেশ হিসেবে পরিচিত আমেরিকাতেও নির্বাচন কিংবা ক্ষমতার পালাবদল হয়ে থাকে অনুকরণীয় গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায়।

উইকিপিডিয়ার তথ্যমতে, ঋসি সুনাক ১২ মে ১৯৮০ সালে সাউদাম্পটন, হ্যাম্পশায়ারের সাউদাম্পটন জেনারেল হাসপাতালে। ভারতীয় পাঞ্জাবি বংশোদ্ভূত দক্ষিণ-পূর্ব আফ্রিকান-জন্মকৃত হিন্দু পিতা-মাতা যশবীর এবং উষা সুনাকের সন্তান। সে হিসেবে তিনি একজন ভারতীয় বংশোউদ্ভুত। অথচ এই বৃটেন ভারতীয় উপমাহদেশকে শাসন এবং শোষন করেছে প্রায় দুইশত বছর। এটা অবশ্য বৃটিশদের দাবি। প্রকৃতপক্ষে এটা ৯০ বছরের মত।

আমাদের দেশে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আর মাত্র বছর খানেক পরই। এ দেশে নির্বাচন মানেই বিরাট এক যজ্ঞ। জ্বালাও, পোড়াও। হানাহানি। কাটাকাটি। মারামারি। হাঙ্গামা। ইত্যাদি। আর ক্ষমতার হস্তান্তর তো আরো যন্ত্রণার। কোন দলই চেয়ার থেকে নামতে চায় না। ব্যর্থতার সাগরে হাবুডুবু খেলেও নাক উঁচিয়ে নি:শ্বাস বন্ধ রেখে জনগনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে গলা ফাটিয়ে বলে আমরাই কেবল সর্বেসর্বা। আমরাই সফল। আমরাই শ্রেষ্ঠ শাসক। ইত্যাদি, ইত্যাদি। এদিকে বিশ্ব জুড়ে শুরু হয়েছে কঠিন এক মন্দা। যাকে শতাব্দীর ভয়াবহ মন্দা হিসেবে আখ্যা দিয়েছে বিশ্বব্যাংক ও জাতিসংঘ। একই সঙ্গে ঘনিয়ে আসছে দূর্ভিক্ষ। এর মধ্যেও আমরা চরম এক বিতর্কে অবতীর্ণ-ভোট হবে কিসে? সাধারণ ব্যালটে নাকি ইভিএমে। এরইমধ্যে ইভিএম কিনতে প্রায় নয় হাজার কোটি টাকার একটি প্রকল্পও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অথচ সবদিকে মাইক বাজিয়ে কৃচ্ছতাসাধনের কথাও বলা হচ্ছে।

যাই হউক শেষ কথা: মানুষ আসলেই কষ্টে আছে। বেশিরভাগই মানুষই আর্থিক কষ্টে আছে। তবুও মানুষ ভাল থাকার ভান করছে। নিজেদের ব্যর্থতাকে স্বীকার না করে নিজের জীবন বাজি রেখে নিজেকে সফল করার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। কেননা সফল মানুষকেই সবাই অনুসরণ করতে চায়। আর ব্যর্থ মানুষকে ডাস্টবিনে কিংবা ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষেপ করাই যেন ইতিহাসের দায়িত্ব। অথচ এই ব্যর্থতার গল্পগুলোর মধ্যেও যে কত রকমের সত্য আর স্বরনীয় ঘটনা থাকে তা আমলে নিতে চায় না কেউই।

লেখক : সিনিয়র সাংবাদিক

ঢাবির‌ দুই বিভাগের নবীনবরণ ও বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মার্কেটিং বিভাগ এবং ভূতত্ত্ব বিভাগের নবীনবরণ ও বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান আজ রবিবার অনুষ্ঠিত

স্বাগতম-সুস্বাগতম এয়ারএ্যাস্ট্রা 

 প্রায় নয় বছর পর নতুন একটি এয়ারলাইন্স পেখম তুলে বাংলাদেশের আকাশ পরিবহনকে স্বস্থির আবহাওয়ায় ভরিয়ে

ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে ডায়াবেটিস

আজ সোমবার  বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২২।বিশ্বের বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত আমাদের দেশেও প্রতি বছর ১৪

পূর্ণাঙ্গ কমিটির জন্য কর্মীদের সিভি চায়: জবি  ছাত্রলীগ

দীর্ঘ দশ বছর পর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ  শাখার পূর্ণাঙ্গ কমিটি হতে যাচ্ছে। এজন্য যাবতীয় পদক্ষেপ গ্রহণ
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

কুবি শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে গোলযোগ সৃষ্টি কারীদের শাস্তির দাবি

পাবিপ্রবিতে সাপের আতঙ্কে শিক্ষার্থীরা

রংপুরে সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে আ.লীগ-জাপা সহ ১০

পোশাক রপ্তানিতে বাংলাদেশ আবারও ভিয়েতনামকে ছাড়িয়ে গেল

ট্রাম্পের কর বিবরণী নথি কংগ্রেসে

১ বিলিয়ন ডলার কমতে পারে প্রবাসী আয়

এই শীতে টমেটো-শিম-লাউ  দিয়ে চিংড়ি মাছ রান্না

একাত্তরে পরাজয় ‘রাজনৈতিক নয় সামরিক ব্যর্থতায়’: বিলাওয়াল ভুট্টো

ঢাবি ছাত্রলীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথি ওবায়দুল কাদের

দেশের সার্বিক উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় পার্বত্যাঞ্চলের জনগণ সম-অংশীদার: প্রধানমন্ত্রী

জাবি সহকারী প্রক্টরের অনৈতিক ঘটনার তদন্তের দাবি

কুবি শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে দুইপক্ষের বাকবিতণ্ডা: নির্বাচন স্থগিত 

২ আসামির ফাঁসি কার্যকর রাজশাহী ও গাজীপুরে

বিএসএমএমইউয়ে ডক্টরস হল ও সিসিইউ-১ কেবিন উদ্বোধন

কিংবদন্তি পেলে আবারও হাসপাতালে

দুই শিশুর চিকিৎসার ব্যয়ভার নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

খেলা কাকে বলে দেখানো হবে বিএনপিকে : ওবায়দুল কাদের

বিজয় মাসের প্রথম প্রহরে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রদীপ প্রজ্বলন

১৩৩ জনের শাস্তির সিদ্ধান্ত ইসির

বেগুনি রঙের কাপড় পরলে মৃত্যুদণ্ড